আপনার স্বপ্নের মেদহীন পেটের জন্য যে ১০টি খাবার পরিহার করবেন

শেয়ার করুন!

মেদহীন পেট আমরা সবাই চাই, কিন্তু আপনি কি জানেন পেটের মেদ কমানোই সবচেয়ে কঠিন?

আপনি ব্যয়াম করেন, আপনার খাদ্যাভাস ভাল ও নিয়ন্ত্রিত, কিন্তু তারপরও আপনার পেটের মেদ যাচ্ছে না। এ রকম ঘটনা খুবই স্বাভাবিক। মেদহীন পেটের জন্য আপনাকে জানতে হবে কোন খাবারগুলি পেটের মেদ কমানোর পথে বাধা সৃষ্টি করে।

পেটের মেদ কমাতে বাধা হয়ে দাঁড়ায় এমন ১০টি খাবারের তথ্য এখানে থাকছে।

১. অ্যালকোহলিক পণ্য পরিহার করুন
অনেক অ্যালকোহলিক পণ্যে প্রচুর ক্যালরি থাকে। তবে ক্যালরিই মূল ঘটনা না। অ্যালকোহল আপনার ক্ষুধা বাড়িয়ে দেয় এবং আপনার ব্রেইনের যে অংশ পেট ভরা থাকার সিগন্যাল তৈরি করে সেই অংশকে দ্বিধায় ফেলে দেয়। সুতরাং, আপনি যতই পরিপূর্ণ থাকুন না কেন, আপনি যখন এক বোতল বিয়ারও পান করেন তখন সাথে কিছু স্ন্যাকও খেয়ে থাকেন।

২. কোমল পানীয় পরিহার করুন
আমরা সবসময়ই এটা শুনে থাকি, তবে এই অভ্যাস বাদ দেওয়া খুব কঠিন মনে হয় আমাদের। আপনি যদি আসলেই পেটের মেদ কমাতে চান তাহলে কোমল পানীয় বাদ দিতে হবে। এমনকি যেসব কোমল পানীয়তে ক্যালরি কম থাকে সেগুলিও আপনার মেটাবলিজম ধীরগতির করে দেয় এবং আপনার শরীরে ফ্যাট বাড়াতে ভূমিকা রাখে।

৩. চুইংগাম কিনবেন না
আপনি যখন চুইংগাম চাবান আপনার মস্তিষ্ক এবং পাকস্থলী সিগন্যাল পায় যে খাবার আসছে। তাছাড়া চুইংগাম চাবালে বেশি পরিমাণে পাকস্থলীর এসিড উৎপন্ন হয় এবং আপনি ক্ষুধার্ত অনুভব করেন।

৪. কম সোডিয়ামযুক্ত খাবার খান / খাবারে লবণ কম খান
মনে রাখবেন, চিনি ও লবণ দুটি জিনিসের পরিমাণই কম হওয়া উচিৎ। বিশেষ করে আপনি যদি উচ্চ রক্তচাপে ভুগতে থাকেন। বেশি সোডিয়ামযুক্ত খাবার আপনার স্বাস্থ্যের জন্য শুধু ক্ষতিকরই না, এগুলি শরীরে পানি ধরে রাখে, যার ফলে পেটের মেদ কার্যকরীভাবে কমে না।

৫. ফাস্টফুডকে বিদায় জানান
ফাস্টফুডে বেশি ক্যালরি থাকে এটা আমরা সবাই জানি। এটা জানার পরেও যদি আপনি ফাস্টফুড ছাড়তে না পারেন তাহলে মনে রাখবেন আপনার পেটের মেদের জন্য ফাস্টফুড অনেক বড় অংশে দায়ী।

৬. মেয়নেজের কথা ভুলে যান
আপনি যদি মেয়নেজের ভক্ত হয়ে থাকেন এবং সালাদেও আপনার মেয়নেজ খাওয়ার অভ্যাস থাকে, তাহলে আপনার জেনে রাখা উচিৎ যে মেয়নেজে ৮০ শতাংশ ফ্যাট থাকে। মেয়নেজের বদলে প্রাকৃতিকভাবে তৈরি টমেটো সস খেতে পারেন, তবে অবশ্যই তাতে সোডিয়াম কম থাকতে হবে।

৭. ফ্রেঞ্চ ফ্রাই কে না বলুন
আপনি যদি ফ্রেঞ্চ ফ্রাই খুব বেশি ভালোবেসে থাকেন তাহলে যত দ্রুত সম্ভব এর সাথে সম্পর্ক শেষ করুন। ভাজা আলু স্পঞ্জের মত কাজ করে, এটি স্যাচুরেটেড ফ্যাট শোষণ করে ও ধরে রাখে। বিশ্বাস করুন অথবা না করুন, স্যাচুরেটেড ফ্যাট আপনার মস্তিষ্কের কার্যকারিতায়ও প্রভাব ফেলে, ফলে ব্রেইনও বুঝতে পারে না এই খাবারের কারণে কী পরিমাণ ওজন বৃদ্ধি ঘটছে।

৮. আর আইসক্রিম না
আপনাকে অবশ্যই আইসক্রিম বাদ দিতে হবে। আইসক্রিমে থাকা প্রচুর সুগার পেটে মেদ হিসেবে জমা হয়। এবং এটা শরীরের সবচেয়ে বাজে ফ্যাট।

৯. পেটে গ্যাস হয় পেট ফুলে থাকে এমন খাবার খাবেন না
অনেক শুকনা বা ওজন কম লোকেরও পেট দেখা যায়। এর কারণ পরিপাকতন্ত্রের গ্যাস অথবা পাকস্থলীতে খাবার ঠিকভাবে হজম না হওয়া। আপনার ক্ষেত্রেও যদি এমনটা হয় তাহলে এই ধরনের খাবার খাবেন না এবং নিয়মিত ব্যায়াম করুন, এতে আপনার হজমশক্তি বৃদ্ধি পাবে।

১০. সুগার-ফ্রি খাবারের ওপর আস্থা রাখবেন না
যেসব খাবারে চিনির বদলে পলিঅ্যালকোহল বা এই জাতীয় যৌগ থাকে, সেই খাবারগুলি শুধুমাত্র ডায়বেটিক রোগীদের জন্য কার্যকরী। এই সুগার ফ্রি পণ্যগুলি আপনার পেটের সাইজ বা মেদবৃদ্ধিতে অনেক ভূমিকা রাখে।

কমেন্ট করুন

মন্তব্য

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here