উত্তর-পশ্চিম চীনের হুয়াশান পাহাড় গ্রীষ্মের সময় দর্শনার্থীদের অন্যতম মূল আকর্ষণ। বিপুল পরিমাণ পর্যটকদের জন্যে এই ব্যবস্থা। তারা কাঠের ব্রিজের ওপর দিয়ে দল বেঁধে এগিয়ে যান। – চায়না ডেইলি

১. তিন বছর বন্ধ থাকার পর পুনরায় চালু হল লিবিয়ার বেনগাজি বিমানবন্দর

২০১৪ সালের গ্রীষ্মে বেনগাজি শহরে চলাকালীন কলহের কারণে বিমানবন্দরটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। সম্প্রতি কয়েক মাস যাবৎ কিছু মালবাহী ও সরকারি বিমান সেই বিমানবন্দর থেকে আসা যাওয়া করা শুরু হয়েছে।

– আফ্রিকা নিউজ

২. রোবটের সাহায্যে পরিচালিত অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে রোগীদের মুখ বিকৃত হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা পাচ্ছে

এটি ‘ট্রান্স-ওরাল রোবোটিক সার্জারি’ পদ্ধতি নামে পরিচিত। অস্ট্রেলিয়ার নেপিয়ান হাসপাতালে ৭৩ বছর বয়সী এক ক্যান্সার রোগীর ওপর সফলভাবে এই অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। তার জিহ্বার ক্যান্সার দূরীকরণে যে অস্ত্রোপচারে সাধারণভাবে ১০-১২ ঘণ্টা সময় ব্যয় হবার কথা, সেখানে এই পদ্ধতিতে সময় লেগেছে মাত্র ৪৫ মিনিট।

মুখের ভেতর সার্জারি করা বেশ কষ্টসাধ্য প্রক্রিয়া। ডাক্তারদের মতে, যেখানে সাধারণ একটা সার্জারির পর রোগীদের নিরাময়ের জন্য বহুদিন সময় লাগত, সেখানে রোবটের সাহায্যে করা এই অস্ত্রোপচারের পরদিনই রোগী বাসায় চলে যেতে পারছন।

– সিডনি মর্নিং হেরাল্ড

৩. গোলাগুলির পর জেরুজালেমের ধর্মীয় পবিত্র স্থান পুনরায় খুলে দিয়েছে ইসরায়েল

গত সোমবার খুলে দেওয়ার পর কয়েক শত মুসলিম সেই স্থান পরিদর্শনে যান। গত সপ্তাহে ইসরায়েলের তিন জন আরব নাগরিক সেখানে দায়িত্বরত দুইজন পুলিশকে গুলিবিদ্ধ করে হত্যা করে। জায়গাটি ইহুদীদের কাছে ‘পাহাড় মন্দির’ ও মুসলমানদের কাছে ‘মহান পবিত্র স্থান’ নামে পরিচিত।

– সিবিএস নিউজ

৪. আগের চাইতে ভালো মানের অভ্যর্থনা না পেলে ইউকে যাবেন না ট্রাম্প

ইউনাইটেড কিংডমের একটি পত্রিকা প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে ও আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের মাঝে ফোনে অনুষ্ঠিত একটি কথোপকথনের প্রতিলিপি প্রকাশ করেছে। যাতে সম্প্রতি সাংবাদিকদের কাছ থেকে পাওয়া অভ্যর্থনার ব্যাপারে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ট্রাম্প। সেই অবস্থার উন্নতি না হলে ইউকে আসবেন না বলে জানিয়েছেন তিনি।

– বিজনেস ইনসাইডার

৫. কাউবয়দের মতো ‘স্টেটসন’ হ্যাট পরে সিরিয়ান শরণার্থীদের বাচ্চার সাথে দেখা করলেন জাস্টিন ট্রুডো

কানাডার ক্যালগারির বিখ্যাত আয়োজন ‘ক্যালগারি স্ট্যাম্পিড’ দেখতে এলবার্টায় গিয়েছিলেন ট্রুডো। সেখানে তার সাথে মিলিয়ে রাখা নামের এক সিরিয়ান শিশুর সাথে সাক্ষাৎ করেন তিনি।

– এবিসি নিউজ

৬. ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি’র ভাই আটক

রাজ্য পরিচালিত ইন্স্যুরেন্স ফার্মের ম্যানেজারদের বর্ধিত বেতন প্রদানের অপরাধে রুহানি’র ভাই হুসেন ফেরিদুনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গত মে মাসে কয়েকজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে জনগণের তহবিল থেকে স্বাভাবিকের চাইতে ৫০ গুণ বেশি বেতন দেওয়া হয়। এই মামলায় তাকে জামিনের অনুমতি দেওয়া হলেও আর্থিক জটিলতার কারণে তা পরিশোধ করতে পারেন নাই হুসেন। ফলশ্রুতিতে জেলে পাঠানো হয় তাকে।

– বিবিসি

৭. মিশরে দুই জার্মান নাগিরক খুনের  আগে জার্মান ভাষায় আলাপ করেছিল হত্যাকারী

গত শুক্রবার মিশরের এক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র লোহিত সাগরের একটি জনপ্রিয় রিসোর্টে দুই জার্মান মহিলার সাথে বসে গল্প করে। তারপর বড় একটি ছুরি বের করে খুন করে তাদেরকে। কোনো দল বা গোষ্ঠী এই হত্যাকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ততা ঘোষণা না করলেও ধারণা করা হচ্ছে যে, ইসলামিক স্টেটের কোনো স্থানীয় প্রতিনিধির কাছ থেকে পাওয়া ফোন কলের মাধ্যমে সেই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল।

– ইন্ডিপেনডেন্ট ইউকে

৮. লাইকোসা অ্যারাগগি: হ্যারি পটার বইয়ের কাল্পনিক মাকড়সার নামে নাম হল ইরানে নতুন খোঁজ পাওয়া মাকড়সাদের

দক্ষিণ-পূর্ব ইরানের পর্বতপ্রধান একটি অঞ্চলে প্রজাপতির সন্ধানে বেরোনো তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা মাকড়সাটি খুঁজে পেয়েছেন। হ্যারি পটার বইয়ের বিশাল আকৃতির মাকড়সা ‘অ্যারাগগ’ অনুসারে নাম রাখা হয়েছে এই প্রজাতির Lycosa aragogi।

– সিএনএন

৯. মানবদেহের একই জিন হৃদরোগ ও প্রজননের জন্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে

মানুষের অস্তিত্বের জন্য সবচাইতে বড় হুমকিগুলির একটি হলো হৃদরোগ। এই রোগের পেছনে মুখ্য ভূমিকা পালন করে যে জিন, সেই জিন এতকাল বিবর্তনের মাঝেও টিকে আছে কীভাবে? কারণ একই জিন আমাদের প্রজননের জন্যে অনেক প্রয়োজনীয় ভূমিকা রাখে। তার মানে এই নয় যে যারা বেশি বেশি বাচ্চার জন্ম দেন, তাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা বেশি। বরং বিবর্তনের মাধ্যমে মানবজাতির প্রজননকে সচল রাখার একটি উপজাত হলো হৃদরোগ।

– মেডিকেল ডেইলি

১০. চীনে পাহাড়ের কিনারায় কাঠের তক্তার বানানো ব্রিজ ব্যবহার করছেন পর্যটকরা

উত্তর-পশ্চিম চীনের হুয়াশান পাহাড় গ্রীষ্মের সময় দর্শনার্থীদের অন্যতম মূল আকর্ষণ। বিপুল পরিমাণ পর্যটকদের জন্যে এই ব্যবস্থা। তারা কাঠের ব্রিজের ওপর দিয়ে দল বেঁধে এগিয়ে যান।

– চায়না ডেইলি