page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল

ট্যারেনটিনোর নতুন ছবিতে অভিনেতার চরিত্রে লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও

ডিরেক্টর কুয়েনটিন ট্যারেনটিনোর নতুন সিনেমায় লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও’র অভিনয়ের কথা নিশ্চিত করা হয়েছে। ২০১৬ সালে অস্কার পাওয়ার পর ২০১৯ সালে ট্যারেনটিনোর এই ছবি দিয়েই ডি ক্যাপ্রিও আবার মূলধারার অভিনয়ে ফিরছেন।

আমেরিকার কুখ্যাত খুনীদের সঙ্ঘ ‘ম্যানসন ফ্যামিলি’র হত্যাকাণ্ড নিয়ে এ সিনেমার গল্প। অভিনেত্রী শ্যারন টেইট ম্যানসন ফ্যামিলির হাতে খুন হয়েছিলেন ১৯৬৯ সালের আগস্ট মাসে। সেই ঘটনার ৫০ বছর পূর্তিতে ২০১৯ সালের আগস্ট মাসেই সিনেমাটি মুক্তি দেওয়া হবে।

তবে সিনেমার প্লট শুধুই ম্যানসন ফ্যামিলি কেন্দ্রিক নয়। বরং এর গল্প ১৯৬৯ সালের হলিউডের সামগ্রিক অবস্থা নিয়ে। সে সময়কার অনেকগুলি ঘটনা একসাথে দেখানো হবে।

ট্যারেনটিনোর বিখ্যাত সিনেমা ‘পাল্প ফিকশন’ এর আদলে এই সিনেমারও কাহিনীধারা সাজানো হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যেখানে একই সাথে অনেকগুলি পরস্পরযুক্ত আনুষঙ্গিক ঘটনা চলতে থাকে, আর দর্শকদের কাছে ধীরে ধীরে সবকিছু স্পষ্ট হয়।

লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও ও কুয়েনটিন ট্যারেনটিনো।

একই সাথে ট্যারেনটিনোর সহজাত ‘বাস্তবের সাথে কল্পনার মিশ্রণের’ ব্যাপারটিও এখানে থাকবে বলে জানা গেছে—তার আগের দুই ছবি ‘ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ডস’ এ হিটলার কিংবা ‘জ্যাঙ্গো আনচেইন্ড’ এ একজন কালো ক্রীতদাসের বেলায় যেমনটা দেখা গিয়েছিল। কেননা শ্যারন টেইটের চরিত্রটি বাস্তব হলেও ডি ক্যাপ্রিও যে চরিত্রে অভিনয় করবেন তা কাল্পনিক। ডেডলাইন এ ব্যাপারে বলেছে—

“লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও’র চরিত্রটি একজন অভিনেতার, যিনি বাউন্টি ল’ নামে একটি ওয়েস্টার্ন টিভি সিরিজে ১৯৫৮ থেকে ১৯৬৩ পর্যন্ত অভিনয় করেছেন। ১৯৬৯ এর দিকে টিভি সিরিজ থেকে সিনেমায় আসার চেষ্টা করেন তিনি, তবে তা সফল হয় না। তাই তিনি ইতালিতে যাবার কথা ভাবছেন, যেখানে ওই সময়ে অনেক অল্প বাজেটের ওয়েস্টার্ন সিনেমা বানানো হচ্ছে।”

চরিত্রটির এই বর্ণনা থেকে মনে হচ্ছে যেন তা অনেকটাই অভিনেতা-পরিচালক ক্লিন্ট ইস্টউডের ক্যারিয়ার থেকে অনুপ্রাণিত। তিনিও শুরুর দিকে ‘রহাইড’ (১৯৫৯-১৯৬৫) নামের এক ওয়েস্টার্ন টিভি সিরিজে অভিনয়ের পর ইতালিতে গিয়ে পরিচালক সার্জিও লিওনি’র ক্লাসিক ‘ডলারস ট্রিলজি’তে অভিনয় করে অভূতপূর্ব সাফল্য পেয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, ছবির গল্পের একটি প্রধান অংশ অভিনেত্রী শ্যারন টেইটকে নিয়ে। ১৯৬৯ সালে চার্লস ম্যানসন ও তার সঙ্গীরা পরিচালক রোমান পোলানস্কি’র স্ত্রী অভিনেত্রী  শ্যারন টেইটকে গর্ভবতী থাকাকালীন পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে।

কমেন্ট করুন

মন্তব্য

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক

Leave a Reply