page contents
লাইফস্টাইল, সংস্কৃতি ও বিশ্ব

‘ডানকার্ক’ (২০১৭) দেখে অশ্রুসিক্ত হলেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের প্রাক্তন সেনা

হাফিংটন পোস্টের তথ্যমতে, ২১ জুলাই, ২০১৭ তারিখে কানাডার ক্যালগারিতে একটি সিনেমা হল থেকে পরিচালক ক্রিস্টোফার নোলানের নতুন সিনেমা ‘ডানকার্ক’ দেখে বের হওয়ার সময় অশ্রুসিক্ত হয়ে পড়েন ৯৭ বছর বয়সী কেন স্টার্ডি।

পদকে ভূষিত জ্যাকেট ও সামরিক টুপি পরিহিত এই দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সাবেক সেনা কানাডার ওয়ার্ল্ড নিউজ’কে বলেন, “আমি কখনোই ভাবি নাই আমাকে আবার এই জিনিস দেখতে হবে। আমি যেন ঠিক সেই সময়ে ফিরে গিয়েছিলাম।”

ওয়েলসের অধিবাসী স্টার্ডি ১৯৪০ সালের ডানকার্ক যুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন। মিত্রপক্ষের প্রায় তিন লাখ ত্রিশ হাজার সৈন্যকে ফরাসী শহর ডানকার্ক থেকে উদ্ধার করা হয়। তাদের মাঝে তিনিও ছিলেন। এছাড়া আরো ১ লাখেরও বেশি ব্রিটিশ ও ফরাসি সেনা নিহত হয়েছিলেন বলে জানায় বিবিসি।

“আজকে আমি কেঁদেছি, কারণ এই হিংস্রতার কোনো শেষ নেই। আমরা মানব জাতি এত বুদ্ধিমান। কত অসাধারণ কাজ আমরা করেছি। আমরা চাইলে চাঁদে উড়ে যেতে পারি, অথচ তারপরও কত নির্বোধ কাজ করি আমরা।”—স্টার্ডির আক্ষেপ।

কেন স্টার্ডি ছাড়াও জর্জ ওয়্যাগনার নামের আরেক প্রাক্তন সেনা ‘পিপল’ ম্যাগাজিনকে বলেছেন, “সিনেমাটা অনেক চমৎকার ও বাস্তবসম্মত।”

অবশ্য কয়েকজন তৎকালীন সৈন্য এমন মন্তব্যও করেছেন যে, সিনেমাতে ঘটনার তীব্রতা বাস্তবের চাইতে কিছুটা অতিরঞ্জিত করে দেখানো হয়েছে।

আরো পড়ুন: ‘ডানকার্ক’ (২০১৭) ছবির রিভিউ

অভিনেতা কেনেথ ব্রানাহ—যিনি ‘ডানকার্ক’ এ একজন আর্মি কমান্ডারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন—জানিয়েছেন, সিনেমাটির ইউকে প্রদর্শনীতে ৩০ জন প্রাক্তন সেনা উপস্থিত ছিলেন।

স্টিফেন কোলবেয়ারের সঞ্চালিত টক শোতে ব্রানাহ বলেন, “তারা অনেকেই বলেছেন, সেখানকার পরিস্থিতি এতটা কোলাহলপূর্ণ ছিল না। আসলে এত বড় সমুদ্র সৈকতে বোমা বর্ষণের শব্দ অনেকটাই মিইয়ে যায়। কিন্তু নোলানের অনন্য ভিশন অনুযায়ী, সিনেমাটা দেখার সময় আপনি এর তীব্রতা থেকে কখনোই বের হতে পারবেন না।”

ইউটিউবে ‘ডানকার্ক’ (২০১৭) ছবির ট্রেলার:

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক