প্রচণ্ড আঘাতের কারণে তার মস্তিষ্ক সংকুচিত হয়ে যায় এবং ধীরে ধীরে সে কথা বলার ক্ষমতা ও পেশীর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে।

পানিতে ডুবে যাওয়া একটি শিশুকে অক্সিজেন থেরাপি দিয়ে বাঁচিয়ে তোলা হয়েছে। একে বলা হয় হাইপারব্যারিক অক্সিজেন থেরাপি।

এই পদ্ধতিতে একটি নির্দিষ্ট চাপযুক্ত চেম্বারের মধ্যে রোগীকে রেখে তাকে খাঁটি অক্সিজেন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। থেরাপির সময় সাধারণের চেয়ে তিন গুণ বেশি অক্সিজেন পায় রোগীর শরীর।

৪৫ মিনিটের ৪০টি সেশনের পর এখন ইডেন কার্লসন প্রায় স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে।

সিবিএস নিউজের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, দুই বছরের জন্মদিনের মাত্র একদিন আগে বাসার সুমিংপুলে পড়ে যায় ইডেন রোজ কার্লসন। প্রচণ্ড আঘাতের কারণে তার মস্তিষ্ক সংকুচিত হয়ে যায় এবং ধীরে ধীরে সে কথা বলার ক্ষমতা ও পেশীর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে। কিন্তু দুই মাস পর অক্সিজেন থেরাপি দেওয়া শুরু হলে তার উন্নতি হয় অভূতপূর্ব।

৪৫ মিনিটের ৪০টি সেশনের পর এখন ইডেন প্রায় স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসেছে।

ইউটিউব ভিডিও:

আরো পড়ুন: বরফজমা পানিতে ডোবার প্রায় ২ ঘণ্টা পরও যে কারণে বেঁচে রইল ২২ মাসের শিশুটি