page contents
লাইফস্টাইল, সংস্কৃতি ও বিশ্ব

মানবপ্রজাতি কেন এত বুদ্ধিমান? বিজ্ঞীনারা জানাচ্ছেন, অনুকরণ ক্ষমতাই এর গোপন কারণ!

মনস্তাত্ত্বিকেরা হয়ত মানব সভ্যতার উন্নয়নের রহস্য কিছুটা আঁচ করতে পারছেন। আর তা হল আমাদের অনুকরণ ক্ষমতা।

আমরা একে অন্যকে অনেক দক্ষতার সাথে অনুকরণ করতে পারি বলেই আমাদের সমাজে সবরকম সংস্কৃতি, রীতি-রেওয়াজ এবং প্রথার জন্ম হয়েছে। যা কিনা প্রজন্মের পর প্রজন্ম যতটা সম্ভব অবিকলভাবে অনুকরণ করার চেষ্টা চালিয়ে যায়।

অথচ প্রাণীজগতে আমাদের নিকট আত্মীয়রাও আমাদের মত এতটা কার্যকরভাবে অনুকরণ করতে সক্ষম নয়।

মানুষের এই অনন্য বৈশিষ্ট্য সম্বন্ধে একটি পরীক্ষার মাধ্যমে জানা গেছে। এই পরীক্ষায় ৫ বছরের নিচে মানব শিশুর একটা দল এবং বনোবো প্রজাতির শিম্পাঞ্জির আরেকটা দল অংশ নেয়।

বার্মিংহাম ও ডারহ্যাম ইউনিভার্সিটির গবেষকরা দেখতে চাইছিলেন যে তারা দুইটি অঙ্গভঙ্গি অনুকরণ করে কিনা। প্রথম অঙ্গভঙ্গিটা এরকম—একটা বাক্সের সাথে হাত ঘষার পর চার বার হাতের কবজি ঘোরানো। আর অন্যটিতে প্রথমে সেই বাক্সের ওপরে হাত দিয়ে কোণাকুনি ক্রস চিহ্ন এঁকে পরে বাক্সটির চারদিকে বৃত্তের মতো করে হাত ঘোরাতে হবে।

৭৭ জন শিশুর চার ভাগের তিন ভাগ  অনুকরণে সক্ষম হলেও ৪৬টি শিম্পাঞ্জির একটিও তা করতে পারে নাই।

ডেইলি মেইলের রিপোর্ট অনুযায়ী, মানুষের অতিসামাজিক প্রকৃতির জন্যই তারা অনুকরণে এতটা দক্ষ বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। কারণ, আপাত কোনো উদ্দেশ্য না থাকা সত্ত্বেও কোনো আচরণ অনুকরণ করার স্বভাব মানুষের মাঝে সবচেয়ে বেশি। একে অন্যের সাথে সৌহার্দ্য তৈরি আর প্রথাগত আচারের সাথে নিজেদের বন্ধন দৃঢ় করার জন্যই তারা এমন করে থাকে।

সাধারণ শিম্পাঞ্জিদের চাইতে বনোবো প্রজাতির শিম্পাঞ্জিদের সাথে মানুষের সাদৃশ্য বেশি। 

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক