page contents
লাইফস্টাইল, সংস্কৃতি ও বিশ্ব

‘ম্যানসন ফ্যামিলি’র অভিনেত্রী শ্যারন টেইট হত্যা নিয়ে ছবি বানাচ্ছেন কুয়েনটিন টারানটিনো

বহুল আলোচিত ‘ম্যানসন ফ্যামিলি’ হত্যাকাণ্ড নিয়ে নিজের পরবর্তী সিনেমা বানাতে পারেন কুয়েনটিন টারানটিনো।

দ্য হলিউড রিপোর্টারের সূত্রে জানা গেছে, পরিচালক কুয়েনটিন টারানটিনো খুবই সন্তর্পণে তার পরবর্তী সিনেমার জন্য হলিউডের প্রথম সারির অভিনেতাদের সাথে দেখা করছেন।

শ্যারন টেইট (১৯৬৮ সালের ছবি)।

প্রতিবারের মত এই সিনেমাটিও টারানটিনো নিজেই লিখবেন ও পরিচালনা করবেন। তার সিনেমার নিয়মিত প্রযোজক হার্ভি ও বব ওয়াইন্সটিন এবারও প্রযোজনার কাজে যুক্ত থাকবেন বলে জানা গেছে। ট্যারান্টিনো’র ২০০৯ সালের অস্কারজয়ী সিনেমা ‘ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ডস’ এর মত এইবারও ওয়াইন্সটিন কোম্পানি তাদের ছবির সহ-প্রযোজক ও পরিবেশক হিসাবে বড় কোনো স্টুডিও’র সন্ধান করছেন।

সূত্রের বরাত দিয়ে হলিউড রিপোর্টার আরো জানিয়েছে, কুয়েনটিন তার চিত্রনাট্যের একেবারে শেষ পর্যায়ে আছেন। তাছাড়া কয়েকদিন আগে তিনি অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্সের সাথে একটি রেস্টুরেন্টে সাক্ষাৎ করেছিলেন। তাই এই সিনেমায় তার অভিনয় করার সম্ভাবনা আছে বলে মনে করছেন অনেকে। অভিনেতা ব্র‍্যাড পিটের সাথেও নাকি এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে যোগাযোগ করা হয়েছে।

পুলিশ এবং উকিলদের মাঝখানে ম্যানসন ফ্যামিলি’র দলনেতা চার্লস ম্যানসন।

অন্যদিকে ফক্স নিউজের তথ্য মতে, অস্ট্রেলিয়ান অভিনেত্রী মারগো রবি—যিনি ‘সুইসাইড স্কোয়াড’ (২০১৬) এবং ‘উল্ফ অফ ওয়াল স্ট্রিট’ (২০১৩) এর মত বড় বাজেটের ছবিতে অভিনয় করে বর্তমানে জনপ্রিয়তার শীর্ষে—ইতোমধ্যেই টারানটিনোর নতুন এই সিনেমাতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বলে জানা গেছে।

তবে এখনো পর্যন্ত কোনো অভিনেতার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা যায় নি। ২০১৮ সালের গ্রীষ্মে ছবির শুটিং শুরু হতে পারে।

ছবিটির চিত্রনাট্যের ব্যাপারে বিস্তারিত জানা না গেলেও গল্পের একটি প্রধান অংশ অভিনেত্রী শ্যারন টেইটকে নিয়ে। পরিচালক রোমান পোলানস্কি’র স্ত্রী এই বিখ্যাত অভিনেত্রী ৮ মাসের গর্ভবতী থাকাকালীন ১৯৬৯ সালে চার্লস ম্যানসন ও তার সঙ্গীদের হাতে পরিকল্পিতভাবে নিহত হন।

১৯৭১ সালে ম্যানসন ও তার গ্রুপের কিছু সদস্যকে—যে গ্রুপের নাম তিনি দিয়েছিলেন ‘ম্যানসন ফ্যামিলি’—সেই হত্যাকাণ্ড এবং ওই গ্রীষ্মে সম্পন্ন আরো কিছু হত্যার দায়ে আজীবন কারাবাসের রায় দেওয়া হয়।

সাত মাস বিচার কার্যক্রমের পরে দোষী সাব্যস্ত ম্যানসন ফ্যামিলির কয়েকজন সদস্য।

কুয়েনটিন টারানটিনো ক্যারিয়ার জুড়ে তার প্রিয় সব জঁনরা নিয়েই কাজ করে এসেছেন। ওয়েস্টার্ন, ক্রাইম আর কৃষ্ণাঙ্গ-অধ্যুষিত ব্ল্যাক্সপ্লোইটেশন জঁনরার আবহে নিজের আদলে সিনেমা নির্মাণ করেন তিনি। তার আরেকটি স্বকীয়তা হল, নিজের ছবির চিত্রনাট্য সবসময় নিজেই লেখেন। এর আগে একবার শুধু একটি উপন্যাস অবলম্বনে গল্প লিখেছিলেন তিনি—জ্যাকি ব্রাউন (১৯৯৭)—সেটি বাদে তার বাকি সব ছবির চিত্রনাট্যই মৌলিক। তবে এই সিনেমাটি নির্মিত হলে তা প্রথমবারের মতো তার জন্যে সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত কোনো ছবি হবে।

২৫ জুন, ২০১৭ তারিখে একই রেস্টুরেন্ট থেকে দুপুরের খাবার নিয়ে আলাদাভাবে বের হয়ে যান অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্স ও কুয়েনটিন টারানটিনো।

শক্তিশালী নারী চরিত্র নির্মাণেও কুয়েনটিন  অভিজ্ঞ। ‘জ্যাকি ব্রাউন’, ‘কিল বিল’ ও ‘ডেথ প্রুফ’ ছবিতে সেই প্রমাণ পাওয়া গেছে। শ্যারন টেইটের চরিত্রটা হতে পারে তাতে আরেকটি সংযোজন।

ম্যানসন ফ্যামিলি নিয়ে এর আগেও কিছু সিনেমা ও টিভি সিরিজ নির্মিত হয়েছে। তবে টারানটিনোর সংস্করণটাই সম্ভবত সবচেয়ে বড় মাপের হতে যাচ্ছে।

About Author

সাম্প্রতিক ডেস্ক