হতাশ থাকলে আমাদের অ্যাড্রিনাল গ্রন্থি ঠিকমত কাজ করে না, ফলে আমরা কাজের স্পৃহা পাই না।

আমরা এমন অনেক কাজ করি যা আসলে আমাদের করার কথা না। এ ৫টি কারণ জানার পর হয়তো আপনার কাজ ও কাজের পদ্ধতি আপনি বেছে নিতে পারবেন।

১. জানি জানি ভাব

অনেকেই মনে করেন যে সব ধরনের কাজের আসল যে জিনিসটা তা তারা বুঝে ফেলেছেন। পরিবেশ বা অভিজ্ঞতা থেকে যা জানার জেনে ফেলেছেন তারা। আত্মবিশ্বাস তৈরির ক্ষেত্রে এমন ভাবনা ভালো কাজ দেয়। কিন্তু যেসব কাজে প্র্যাকটিসের প্রয়োজন হয় বা যেসব কাজ ঠিক টাইমে শেষ করতে হয় সেসব ক্ষেত্রে ‌এই সবজান্তা কোনো কাজে আসে না।

‘আমি তো জানিই’ ভাব বজায় রাখতে গিয়ে আমরা অনেকে বেসিক ধারণাগুলিও নেই না বা সাধারণ নির্দেশাবলীও পড়তে চাই না।

কাজের শুরুটা না জানার কারণে অনেক সময় নষ্ট করে নানান দুর্বলতার সঙ্গে কাজ করি আমরা। ছোট কাজগুলি করারও যে একটু ভালো নিয়ম থাকতে পারে তা আমরা আমলে আনি না।

২. তাড়াহুড়া

আমরা অনেকেই তাড়াহুড়া করে কাজ শেষ করে দিতে চাই। তাড়াহুড়া থাকলে কাজে বার বার একই ভুল ঘটতে পারে। আবার তাড়াহুড়ার কারণেই সে-ভুল চোখেও পড়বে না। তাড়াহুড়া এড়াতে চাইলে অল্প সময়ের জন্যে কাজ থেকে একদম সরিয়ে নিন নিজেকে। প্রতিদিন অল্প অল্প করে আগালে সে কাজের মান ভালো হতে পারে।

৩. চর্চা আর মনোযোগের অভাবে

অন্যদিকে মনোযোগ দেয়ায় প্রচুর সময় নষ্ট হয়। মনোযোগ না দিয়ে করা কাজ ঠিকঠাক করতে গিয়েও সময় নষ্ট হয়। মনোযোগ বাড়ানোর জন্য সব কাজই গুরুত্ব দিয়ে করতে হবে। এবং বার বার অনুশীলন করতে হবে। অফিসের উচ্চপদস্থরাও অনুশীলন করেন। অনুশীলন করেন খেলোয়াড়েরাও। অনুশীলন কোনো লজ্জার ব্যাপার না।

৪. হতাশা

আপনি যদি ব্যর্থতার কারণে হতাশ হয়ে পড়েন, যাই করেন না কেন, যেভাবেই করেন না কেন তা খারাপ হবেই। হতাশা কাজের স্পৃহা আর গুণ দুইই নষ্ট করে। হতাশ থাকলে আমাদের অ্যাড্রিনাল গ্রন্থি ঠিকমত কাজ করে না, ফলে আমরা কাজের স্পৃহা পাই না।

সাময়িক ভাবে ব্যর্থ হলেও হতাশ হবেন না। কী কারণে ব্যর্থ হচ্ছেন তা খুঁজে বের করুন।

৫. অনাগ্রহের কাজ

যে কাজে আপনার আগ্রহ নেই তা ভালোভাবে হবে না। যেহেতু কাজে মন নাই তাই কাজের ছোটখাটো ভুলগুলিকে আপনি তেমন একটা গুরুত্ব দিবেন না। যে কাজ আপনি ভালবাসেন, বা আপনার আগ্রহ আছে এমন কাজে আপনি সবসময়ই উন্নতির চেষ্টা করবেন। আর তাই সে কাজ আপনি অবশ্যই ভালোভাবে করবেন, সে কাজ শেখার আগ্রহও বোধ করবেন।

মনের মধ্যে কাজ শেখার আগ্রহ থাকাটা জরুরী। আপনি যদি কোনো কাজের মধ্যে নতুন কিছু শেখার আগ্রহ না পান, তবে সে কাজ না করাই ভালো।