–গবেষকরা খোদাইগুলিতে বিশেষ কারিগরী দক্ষতার কথা উল্লেখ করেছেন।–

সৌদি অারবের মরুভূমিতে প্রত্নতাত্ত্বিকরা প্রমাণ সাইজের কিছু উটের ভাস্কর্য খুঁজে পেয়েছেন।

সৌদি-ফরাসি গবেষক দল উত্তর-পশ্চিম সৌদি আরবের আল জফ প্রদেশে তা খুঁজে পেয়েছেন যেটা ‘ক্যামেল সাইট’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।

ভাস্কর্যগুলিকে আকার এবং মানে নজিরহীন ও লো এবং হাই রিলিফে আঁকা প্রথম প্রমান সাইজের ‘উট এবং ঘোড়া’র খোদাই বলে মনে করা হচ্ছে।

শত শত বছর ধরে এ অঞ্চলের শিল্পে উট ব্যবহার করা হচ্ছে। কিন্তু, গবেষকরা খোদাইগুলিতে বিশেষ কারিগরী দক্ষতার কথা উল্লেখ করেছেন।

গবেষকেরা মনে করেন ভাস্কর্যগুলিতে অারবদের নিজস্ব ঐতিহ্যের সঙ্গে নাবাতেয়ান ও পার্থিয়ান প্রভাব মিশ্রিত হয়েছে।

জর্দানের পেত্রা অঞ্চলের কিছু রিলিফের সাথে তুলনা করতে গিয়ে গবেষকরা ধারণা করেন ভাস্কর্যগুলি কিছু পূর্ব বা পরবর্তী খ্রীষ্টিয় প্রথম শতাব্দীর হয়ে থাকতে পারে।

উটের এই খোদাই সাইটটি এখন প্রত্নতাত্ত্বিক আবিষ্কারের জন্য সৌদি রক আর্টের বিশেষ প্রদর্শনী হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।