page contents

About Author

সাযযাদ কাদির
সাযযাদ কাদির

কবি ও বহুমাত্রিক লেখক। জন্ম: ১৯৪৭, টাঙ্গাইল। পেশা: সাংবাদিকতা, শিক্ষকতা। সাবেক সহকারী সম্পাদক, বিচিত্রা; দৈনিক সংবাদ। ভাষা-বিশেষজ্ঞ, রেডিও পেইচিং, গণচীন। পরিচালক, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট। বই— কবিতা: যথেচ্ছ ধ্রুপদ; রৌদ্রে প্রতিধ্বনি; দূরতমার কাছে; দরজার কাছে নদী; এই যে আমি; জানে না কেউ; বিশ্ববিহীন বিজনে; মণিমালা সিরিজ; বৃষ্টিবিলীন; কবিতাসংগ্রহ। গল্প: চন্দনে মৃগপদচিহ্ন; অপর বেলায়; রসরগড়; গল্পসংগ্রহ। উপন্যাস: অন্তর্জাল; খেই; অনেক বছর পরে; জলপাহাড়: চার চমৎকার; আঁচ। প্রবন্ধ-গবেষণা: ভাষাতত্ত্ব পরিচয়; হারেমের কাহিনী: জীবন ও যৌনতা; রবীন্দ্রনাথ: মানুষটি; রবীন্দ্রনাথ: শান্তিনিকেতন; বাংলা আমার; সহচিন্তন; বিচলিত বিবেচনা; চুপ! গণতন্ত্র চলছে...; ম্যাঙ্গো পিপল উবাচ; সহস্রক; রমণীমন; রাজরূপসী; নারীঘটিত; সাহিত্যে ও জীবনে রবীন্দ্র-নজরুল। শিশুতোষ: মনপবন; রঙবাহার;এফফেনতি; উপকথন; উপকথন আরও; উপকথন আবারও; উপকথন ফের; উপকথন তেপান্তর; উপকথন চিরদিনের; ইউএফও: গ্রহান্তরের আগন্তুক; সাগরপার; মহাবীর হারকিউলিস; জানা-অজানা বাংলা; তেনালি রামন। ভাষান্তর: লাভ স্টোরি; রসচৈনিক। স্মৃতিকথা: নানা রঙের দিন। সম্পাদনা: শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের শ্রেষ্ঠ কবিতা; দুষ্প্রাপ্য প্রবন্ধ; এই সময়ের কবিতা; এই সময়ের কবিতা ২০১৪; এই সময়ের কবিতা ২০১৫; শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের প্রেমের কবিতা।

Author Posts

যার নাম মাতৃকুলনাশনম্

আমাদের সময়েই, ১৯৬২ সালে, শেষ হয় বৃটিশ আমলে প্রচলিত ম্যাটরিকুলেশন (সংক্ষেপে ‘ম্যাটরিক’) পরীক্ষার পদ্ধতি।

দেলদুয়ার, চারান ও স্ট্রং ডায়রিয়া

দেলদুয়ারে বসেই মীর সাহেব 'বিষাদ সিন্ধু' রচনা করেন ও উৎসর্গ করেন করিমুন্নেসাকে।

বজ্র, টারজান ও দস্যু বাহরাম

কাজী আনোয়ার হোসেনের নামে প্রকাশিত হলেও সিরিজটি [কুয়াশা] লিখতেন রাহাত খান।

ঘাড়ে একটা ভূত

এভাবেই ক্লাশ সেভেনেই আমি পাড়া ছাড়িয়ে, ক্লাশ ছাড়িয়ে শহরের একজন প্রতিষ্ঠিত কবি। সেটা ১৯৫৮ সাল। বয়স আমার ১১।

সেদিনের সেই ওসতাদ

ষাটের দশকের শেষ দিকে সম্বোধন হিসেবে ‘ওসতাদ’ ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়েছিল সাহিত্য-সংস্কৃতির নবীন মহলে।