page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল

বইমেলা ২০১৬ Archive

“ছোটবেলা থেকে আমি একটু ভাবুক ছিলাম।”—ঝর্না রহমান

আমি যখন স্কুলে পড়ি তখন থেকেই আমি একটু একটু লিখি। প্রকাশ হয় নি। কিন্তু আমার খাতা ছিল, খাতার মধ্যে লিখে রাখতাম।

“কোনো প্রকৃত কবিই পাঠকের জন্য কবিতা লেখেন না, কবিতা লেখেন নিজের জন্য।”—মাহবুবুল হক শাকিল

বাংলা কবিতা... আসলে আমি যেটা মনে করি, আমি বলবো যে গত দুটি দশক ছিল অনেকটাই বন্ধ্যাত্বের দশক। এবং এই দশকে এসে আবার মনে হয়েছে যে বেশ কিছু তরুণ শক্তিমান লেখক আমরা পেয়েছি।

“কবিতা কম লেখার কারণ হইল, আমি একই বিষয়ে আবার লিখি না।”—সাযযাদ কাদির

উনি (আহমাদ মোস্তফা কামাল) লিখেছেন, এই ধরনের গল্প তখনো কেউ লিখতে পারে নাই এবং এখনো কেউ লিখতে পারবে না—উনি এই চ্যালেন্জটা করে দিয়েছেন।

“আমাদের কথাসাহিত্যের দিন এখন খুব ভালো।”—সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম

আমি তো একধরনের গল্প লিখি, যেটা আমারদের কথ্য ঐতিহ্যে স্থাপিত। গল্প বলার ঐতিহ্য। লেখার না। ভাষার কারুকাজ, বা ওই গভীরে চলে যাওয়া, ভাষার… ওটা না।

“প্রতি বছরই আমার চেষ্টা থাকে গত বছর যে রকম লিখেছি, এ বছর সেরকম লিখবো না।”—মঈনুল আহসান সাবের

রাইটার্স ব্লক সব লেখকেরই ক্ষেত্রে ঘটে। কোনো না কোনো সময় রাইটার্স ব্লক ঘটে। লিখতে পারে না, লেখা হয় না, চেষ্টা করেও হয় না।

“রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরই বেশি প্রিয়, পাশাপাশি হুমায়ূন আহমেদ ভাল্লাগে।”—তাহসিনুল ইসলাম

প্রাথমিক অবস্থায় ফেসবুকের মাধ্যমে লেখালেখি, গল্প লেখা শুরু। এখান থেকেই অনেকের অনুপ্রেরণা থেকেই আর কি উপন্যাস লেখা।

“যারা এখন কোটি কোটি টাকার মালিক, লেখকেরা, তাদের হাত দিয়ে কিন্তু ভালো লেখা আসছে না।”—নূরুল আনোয়ার

সাহিত্যটা আমার যদি অভিজ্ঞতা না থাকে আমি কল্পনা করে কোনো কিছু লিখতে পারবো না।

“ফকিন্নি টাইপের লোকদের জন্যে মেলা, ভালো লোকদের জন্যে মেলা না।”—সাইয়েদ জামিল

আমার ‘হারানো প্রেমিকার মুখ’, আমি বলি যে ভুষি মাল। আরেকটা ধরেন ‘নিয়ম না মানা মাস্টার’, এটা হচ্ছে ধরেন ভালো মাল।

“ব্রেইনটাকে ডিস্টার্ব করবে না, কিন্তু ভালো লাগবে ওরকম লেখার দিকে বোধহয় মানুষ একটু টার্ন করছে।”—ফারজানা করিম

সেদিক থেকে হুমায়ূন আহমেদের লেখাগুলো জনপ্রিয় হওয়ার পিছনে এটা একটা বিশাল রিজন যে উনার লেখাগুলো মধ্যে একটা সরলতা আছে, সহজ একটা ভাব আছে যেটা মানুষ পছন্দ করে।

“অনেক অভিজ্ঞতাই আমি সরাসরি ফেইস করতে পারি না, কবিতার আশ্রয় নিতে হয়।”—সিদ্ধার্থ হক

লিটারেচার অ্যাজ এ হোল আমার বেঁচে থাকার অংশ—বন্ধু—এক ধরনের অক্সিজেন বলা যায়। তো লেখালিখিটাও সেরকম।