page contents
সমকালীন বিশ্ব, শিল্প-সংস্কৃতি ও লাইফস্টাইল

জোনাথন নোলান Archive

জার্নি ইনটু নাইট—ওয়েস্টওয়ার্ল্ড ২

তাহলে মানুষ বা অন্যান্য প্রাণী কি বায়োলজিক্যালি প্রোগ্রাম করা কোনো জিনিস?

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ১০

কয়েকজন হোস্টকে মডার্ন হিউম্যান ব্রেইনের কাছাকাছি নিয়ে আসা হয়েছে। যেমন ডোলোরস, মেইভ এবং বার্নাড।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ৯

মেইভের এত পাওয়ারফুল হয়ে যাওয়াটা সব সময়ই অস্বাভাবিক মনে হচ্ছে।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ৮

রবার্ট ফোর্ডের চরিত্রটা এই পর্বে খুব ক্লিশে মনে হয়েছে, যখন সে মেরি শেলির ফ্রাঙ্কেনস্টাইন থেকে কোট করে।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ৭

অনেক সেক্স সিন আছে, প্রচুর ন্যুড ফিগার দেখাচ্ছে এই সিরিজে—কিন্তু এইসব সিনে কোনো সেনসেশন নাই। খুবই প্লেইন।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ৬

রবার্ট ফোর্ডের সাথে তার ছোটবেলার ভার্সনের, মানে সেই বাচ্চা হোস্টের দেখা হয়। সে কুকুরটাকে মেরে ফেলছে।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ৫

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স কীভাবে মানব প্রজাতির জন্য বা এই ইউনিভার্সের জন্য থ্রেট হতে পারে সেই থিওরি দেখাচ্ছে ওয়েস্টওয়ার্ল্ড।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ৪

হপকিন্সের আগের সেই ভয়েস, কথা বলার বুদ্ধিদীপ্ত স্টাইল, সাইকোলজিক্যালি ডমিনেটিং মেজাজ সব কিছুই আগের মত একই আছে।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ২

ওয়েস্টওয়ার্ল্ডের থিম পার্কের আইডিয়া আর কম্পিউটার গেমসের আইডিয়া আসলে একই আইডিয়ার আলাদা দুইটা রূপ।

ওয়েস্টওয়ার্ল্ড – ১

এই পার্কের স্থায়ী বাসিন্দাদের কেউই সত্যিকারের মানুষ বা হিউম্যান বিইং না। তারা ল্যাবরেটরিতে বানানো এবং প্রোগ্রাম করা।